ঢাকারবিবার , ১৭ জুলাই ২০২২
  1. #টপ৯
  2. #লিড
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. ইচ্ছেডানা
  8. উদ্যোক্তা
  9. ক‌রোনা মহামা‌রি
  10. কৃষি
  11. ক্যাম্পাস
  12. খেলাধুলা
  13. গণমাধ্যম
  14. চাকুরীর খবর
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মি‌ছিল, শেষ ১২ ঘণ্টায় ২৮ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু!

অনলাইন ডেস্ক
জুলাই ১৭, ২০২২ ১:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বাংলাদেশের রাস্তাঘাট সব সময়ই বিপজ্জনক বিভিন্ন কারণে। কিন্তু শনিবার (১৬ জুলাই) দেশের অনেক মহাসড়কে যেন নামে মৃত্যুর মিছিল। সবশেষ ১২ ঘণ্টায় অন্তত ২৮ জন মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হয়েছেন।

এ সময় ঢাকা, হবিগঞ্জ, টাঙ্গাইল, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, রাজশাহী, ময়মনসিংহসহ ১০ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ৩৪ জন।

এদিকে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় ট্রাকচাপায় ঘটনাস্থলেই মারা যান স্বামী, অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও এক মেয়ে। তবে অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূর মৃত্যু হলেও দুর্ঘটনার সময় পেট ফেটে বিপজ্জনকভাবে জন্ম নেয় এক কন্যা শিশু। শিশুটি অলৌকিকভাবে বেঁচে যায়।
এক্সরে করার পর শিশুটির ডান হাতের দুটি অংশে ভাঙা দেখা গেছে। শিশুটিকে ময়মনসিংহ সদরের সিবিএমসিবি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালটির মেডিকেল অফিসার আরিফ আল নূর বলেন, আমরা বাচ্চাটির অবস্থা ভালো পেয়েছি। পরে এক্সরে করার পর ডান হাতের দুটি অংশে ভাঙা দেখা গেছে।
ভোর ৪টার দিকে রাজধানীর শাহবাগ থানাধীন প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের সামনে বাসচাপায় ইব্রাহীম বিশ্বাস (২৪) নামে এক রিকশা আরোহী নিহত হয়েছেন। ইব্রাহীম বরিশাল উজিরপুর উপজেলার বিশ্বাসবাড়ি গ্রামের সান্টু বিশ্বাসের ছেলে। বিষয়টি জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ডিউটি অফিসার (এসআই) রাজু মুন্সি।
টাঙ্গাইলে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের তিনজনসহ আটজন নিহত হয়েছেন। দুপুর ১২টার দিকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের পাকুল্লায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে বাসচাপায় মা ও দুই ছেলে-মেয়ে নিহত হন।
মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা টুটুল জানান, বেলা ১২টার দিকে দুই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলেন মা। এ সময় দ্রুতগামী একটি বাস তাদের চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই মেয়ের মৃত্যু হয়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তারাও মারা যান।
এর আগে ভোর পৌনে ৫টায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ভাতগ্রাম ইউনিয়নের দুল্যা মনসুর এলাকায় ঢাকাগামী বালুভর্তি একটি ট্রাকের পেছনে যাত্রীবাহী বিনিময় পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দিলে চারজন নিহত হন। দুর্ঘটনায় বাসের কমপক্ষে ১০ যাত্রী আহত হন। তাদের উদ্ধার করে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া মির্জাপুরের পাকুল্যায় বাসচাপায় আরেক শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় নারীসহ দুজন আহত হন।
কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাস সিরাজগঞ্জের খালকুলা এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এ সময় পেছন থেকে অপর একটি ট্রাক ওই বাস ও ট্রাককে সজোরে ধাক্কা দেয়। সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন জানান, এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন। আহত হন পাঁচজন।
ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কের কালীগঞ্জ উপজেলার পিরোজপুরে ট্রাকের ধাক্কায় লোকমান হোসেন (৮০) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হন আরও ৪ জন। সকালের এ দুর্ঘটনায় নিহত লোকমান হোসেন কালীগঞ্জ উপজেলার খোসালপুর গ্রামের বাসিন্দা। কালীগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মেজবাহ উদ্দিন এ তথ্য জানান।
বেলা ১১টার দিকে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার উজানিসায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন (৪৫) ও সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক চাঁন মিয়া (৫০) নিহত হন। এ ঘটনায় চারজন আহত হন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ এমরান এ তথ্য জানান।
গাজীপুরের পূবাইলে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছেন। ভোরে পূবাইলের কলেজ গেট এলাকায় ট্রাক-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে লেগুনার এক যাত্রী নিহত হন। আহত হন ৭ যাত্রী। অপরদিকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শুকুন্দিরবাগ এলাকায় দুই অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত হন আরেক যাত্রী। নিহতরা হলেন শেরপুর জেলার মাঝপাড়া থানার গোলাম রাব্বানীর ছেলে মনিরুজ্জামান মনির (৩৮) ও নরসিংদী জেলার মনোহরদি থানার কেরানিনগর গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে ইব্রাহিম হোসেন (৩৩)। পূবাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহিদুল ইসলাম সময় সংবাদকে এ তথ্য জানিয়েছেন।
রাজশাহীর মোহনপুরে বাস ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন।
ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জের রুস্তমপুর টোল প্লাজার কছে বাসচাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার তিনযাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন দুজন। নিহতরা হলেন- নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের বেতাপুর গ্রামের আবুল হোসেন চৌধুরীর স্ত্রী বকুল বেগম (৬২), কচি মিয়া চৌধুরীর ছেলে এহিয়া চৌধুরী জাবেদ (২৪) ও দৌলপুর গ্রামের অটোরিকশা চালক রব্বান মিয়া(৪০)।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।